রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo ভরাসার উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে নবাগত এমপি এড.আবুল হাসেম খানের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি Logo কুমিল্লা দক্ষিণ দূূর্গাপুর ইউপির একটি মড়েল ওয়ার্ড হিসেবে পরিণত করা আমার মূল লক্ষ্য আবদুল হান্নান সোহেল Logo কুমিল্লা ধর্মসাগরে বড়শিতে ধরা পড়ল ৪৩ কেজির ব্ল্যাক কার্প Logo দেবিদ্বারে ন্যাশনাল লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড মডেল জোনে সংবর্ধনা ও উন্নয়ন সভা Logo বুড়িচংয়ের ভরাসারে হাই স্কুলে সংবর্ধনা ও একটি ডায়াগনষ্টিক সেন্টার শুভ উদ্বোধন করবেন আগামীকাল শুক্রবার-পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি Logo কুমিল্লায় কাউন্সিলরসহ জোড়া হত্যা মামলার প্রধান আসামি শাহ আলম বন্দুকযুদ্ধে নিহত Logo দেবিদ্বারের প্রতিবন্ধি কমপ্লেক্সে স্কুলে এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ Logo কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন কাউন্সিলর সোহেল হত্যাকান্ডে ব্যবহারকৃত দু’টি গুলিসহ উদ্ধার;আসামি আটক Logo কুমিল্লায় ১৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সোহেলসহ দু’হত্যা: দুই আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত Logo চান্দিনায় মাইজখার ইউপির নির্বাচনে উপজেলা কৃষক লীগ নেতা মোঃ শাহ জালাল উদ্দীন ভূইয়া তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় আলোচনা

কুমিল্লায় জোড়া খুনের রহস্য উন্মোচন করার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম মাঠে আসামিদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে

কুমিল্লার অনুসন্ধান ডেস্ক : / ৪৬ বার পঠিত
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১০:২৭ অপরাহ্ণ

Spread the love

সাইফুল ইসলাম শিশির, কুমিল্লাঃ

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ মোহাম্মদ সোহেল ও তার সহযোগী হরিপদ সাহাকে গুলি করে হত্যার ২৪ ঘণ্টা পার হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করতে পারিনি। কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় কোনো মামলা ও সন্দেহ মূলক কাউকে আটক করা হয়নি। এ ঘটনায় পর এখন পর্যন্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাউকে আটক করতে পারেনি।এদিকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম মাঠে তদন্ত করে আসামিদের গ্রেফতার করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় পাশের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরাইশ এলাকা থেকে অস্ত্র, গুলি, ককটেল ও কালো জামা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এব্যাপারে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সোহান সরকার জানান, আমরা ধারণা করছি কাউন্সিলর সহ দু’জনকে হত্যাকাণ্ডে এসব অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে। এগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

এবিষয়ে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী আব্দুর রহিম (অর্থ ও প্রশাসন) জানান, ঘটনার পর থেকে হামলাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।নিহত কাউন্সিলর সোহেলের ছেলে হাফেজ মো. নাদিম জানান, আমরা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। তাই মামলা করতে দেরি হচ্ছে। মামলা দায়ের করা প্রস্তুতি চলছে।

প্রসঙ্গত, গতকাল সোমবার (২২ নভেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তদের গুলিতে কাউন্সিলর সোহেল ও তার সহযোগী হরিপদ সাহা নিহত হন। এ ঘটনায় চারজন গুলিবিদ্ধ হয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
Theme Customized By Theme Park BD